,

স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে সহযোগিতা দেবে পুলিশ : আইজিপি

2016_07_24_17_47_07_SuPnJjN2Hu3k9bPcz7ysNaj15y7Ls9_originalবিশেষ প্রতিনিধি, সংবাদ সবসময় :

স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে আগ্রহীদের সার্বিক সহযোগিতা প্রদানের ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল (আইজিপি) একেএম শহীদুল হক। তিনি বলেছেন, ‘জঙ্গিবাদ একটি ঘৃণিত কাজ। ইতোমধ্যে জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করতে গিয়ে যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের লাশ পরিবার গ্রহণ করেনি। এর চেয়ে বড় ঘৃণার কাজ আর হতে পারে না।’

রোববার (২৪ জুলাই) দুপুরে কক্সবাজারের একটি আবাসিক হোটেলের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহবান জানান।

জঙ্গি সংশ্লিষ্টদের ফিরে আসার আহবান জানিয়ে বলেন, যারা জঙ্গিবাদে বিশ্বাস করে তাদের সাথে যোগ দিয়ে এখনো পর্যন্ত কোনোরূপ হত্যা ও নাশকতায় জড়িত হয়নি তারা সকলেই ফিরে আসতে পারেন। আরা যারা হত্যা ও নাশকতা করার পরও নিজের ভুল বুঝতে পেরে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে চায়, সরকার তাদের আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের ক্ষেত্রে অবশ্যই বিবেচনা করবে। এ ক্ষেত্রে সরকার চাইলে সাধারণ ক্ষমাও করতে পারে।

পুলিশ সুপার শ্যামল কুমার নাথের সভাপতিত্বে সভায় পুলিশের এ সর্বোচ্চ কর্মকর্তা বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জাতীয় ঐক্যের ডাকে সমাজের সকল স্তরের মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে। জঙ্গি সংশ্লিষ্ট যারা গ্রেপ্তার হয়েছে ওখানে এখনো রোহিঙ্গা সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায়নি। তবে তারা পুলিশের সন্দেহের তালিকায় রয়েছে। রোহিঙ্গাদের প্রতি চোখ কান সজাগ রাখতে হবে।

তিনি বলেন, সকল ধর্ম শান্তির কথা বলে। ধর্ম মানুষ হত্যার কথা বলে না। অথচ সাধারণ মানুষকে হত্যা করে বেহেস্তে যাওয়ার মত কুমন্ত্র বিশ্বাস করে ধর্মের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে তারা।

গুলশানের ঘটনার পর বাংলাদেশ বিশ্বের কাছে একটি জঙ্গি রাষ্ট্র চিহ্নিত করার চেষ্টা বলে উল্লেখ্য করে আইজিপি বলেন, এ ঘটনায় যাদের হত্যা করা হয়েছে তারা দেশের উন্নয়নে কাজ করতে এসেছিল। কিন্তু ফিরলেন লাশ হয়ে। এটা দেশের উন্নয়নে প্রতিবন্ধকতা।2016_07_24_17_47_09_vnUKbUtNaEbevLlxbDAuWcX25lypuU_original

সভায় পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মো. শফিকুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন, বিজিবি কক্সবাজারস্থ ১৭ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল ইমরান উল্লাহ সরকার, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান প্রমুখ বক্তব্য দেন।

মতামত.........