,

সৌদিআরবের জেদ্দায় মার্কিন কনসুলেটে হামলার চেষ্টা, নিহত ১

2016_07_04_11_46_45_KNVAVPlZF1CrpuBYIgz00tPXNicIA7_originalআরিফ মৃধা, সৌদি আরব প্রতিনিধি:

সৌদি আরবের জেদ্দায় মার্কিন কনসুলেটে আত্মঘাতী বোমা হামলার চেষ্টা চালিয়েছিল এক আত্মঘাতী হামলাকারী।। এতে হামলাকারী নিহত এবং দু’জন নিরাপত্তারক্ষী আহত হয়েছেন। কিন্তু নিরাপত্তা বাহিনীর তৎপরতায় তার সে চেষ্টা ব্যর্থ হয়ে যায়। পরে সে নিজের দেহে থাকা বিস্ফোরকে বিস্ফারণ ঘটিয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন দুই সৌদি পুলিশ। তবে কনসুলেটের কোনো কর্মচারী হতাহত হয়নি। সৌদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে আল আরাবিয়া।

সোমবার সেহেরির সময় মার্কিন কনসুলেট সংলগ্ন হাসপাতালের পার্কিং লটের কাছে নিজের গাড়িটি পার্ক করে ওই ব্যক্তি। এরপর গাড়ি থেকে বেরিয়ে সে হাসপাতালের বিপরীতে অবস্থিত কনসুলেট লক্ষ্য করে এগিয়ে যাচ্ছিল। তার গতিবিধি সন্দেহ হওয়ায় পুলিশ কর্মকর্তারা তাকে দাঁড়ানোর নির্দেশ দেন এবং তার দেহ তল্লাশির জন্য এগিয়ে যেতে থাকেন। কিন্তু তারা পৌঁছানোর আগেই হামলাকারী নিজের দেহে থাকা সুইসাইড বেল্টে বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তা আহত হয়েছেন। তবে তাদের আঘাত তেমন মারাত্মক নয়।

তাৎক্ষণিকভাবে নিহত হামলাকারীর পরিচয় জানা যায়নি। তবে স্থানীয় সাবক অনলাইন নিউজ পোর্টালে প্রকাশিত ছবিতে দেখা যায়, দীর্ঘদেহী একজনের মৃতদেহ দুটি ট্যাক্সির মাঝখানের রাস্তায় পরে আছে। এক প্রত্যক্ষদর্শী সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, মার্কিন কনসুলেটের বাইরের চেকপয়েন্ট থেকে মাত্র ২০ মিটার দূরে ওই বিস্ফোরণ হয়। তাৎক্ষণিকভাবে কোনো গোষ্ঠী এ হামলার দায় স্বীকার করেনি। এর আগে ২০১৪ সালে সৌদি নিরাপত্তা কর্মকর্তা ও সংখ্যালঘুদের লক্ষ্য করে ভয়াবহ সহিংসতা ছড়িয়ে পড়েছিল। জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট ওই হামলার দায় স্বীকার করেছিল। গতবছরের মার্চ মাসে সৌদিতে মার্কিন দূতাবাসের প্রধান কার্যালয় বন্ধ করে দেয় যুক্তরাষ্ট্র। বর্তমানে কেবল জেদ্দা ও দাহরানে দুটি কনসুলেট চালু রয়েছে।

 

 

মতামত.........