,

সিলেটে মাসুমের হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারে ছাত্রলীগের ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম

সিলেট প্রতিনিধি ::
সিলেট নগরীর শাহপরান থানাধিন শিবগঞ্জ এলাকায় নিজ দলের ক্যাডারদের ছুরিকাঘাতে জাকারিয়া মোহাম্মদ মাসুম নামের এক ছাত্রলীগ কর্মী নিহত হয়েছে।এ হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে নগরীর চৌহাট্টা এলাকায় টায়ারে আগুন ও সড়ক অবরোধ করেছে ছাত্রলীগ।
জাকারিয়া মো. মাসুম হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার দাবিতে সড়ক অবরোধ করে ছাত্রলীগের সুরমা গ্রুপ। এসময় হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারে ২৪ ঘন্টার সময়সীমা বেঁধে দেয় বিক্ষোভকারীরা।
বুধবার রাত ৮.১৮ থেকে ৯-২৫ মিনিট পর্যন্ত নগরীর চৌহাট্টায় সড়ক অবরোধ করে রাখে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এসময় সড়কে আগুন জ্বালিয়ে হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানায় তারা।
অবরোধের ফলে চৌহাট্টার ৪ টি সড়কেই যানজটের সৃষ্টি হয়। চরম বিপাকে পড়েন সাধারণ যাত্রীরা। প্রায় একঘন্টা পর পুলিশের আশ্বাসে অবরোধ প্রত্যাহার করে বিক্ষোভকারীরা।
সড়ক অবরোধকালে উপস্থিত থাকা জেলা ছাত্রলীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক বিপ্লব কান্তি দাস বলেন, মাসুম হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারে আমরা প্রশাসনকে ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়েছি। এসময়ের মধ্যে হত্যাকারীরা গ্রেপ্তার না হলে আমরা আরও কঠোর কর্মসূচী দেবো।
কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গৌছুল হোসেন জানান, হত্যাকান্ডের ঘটনাটি ঘটেছে শাহপরাণ থানা এলাকায়। আর ছাত্রলীগ কর্মীরা অবরোধ করেছে কোতোয়ালী থানা এলাকায়। তারপরও কোতোয়ালী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অবরোধকারীদের হত্যার সাথে সম্পৃক্তদের গ্রেপ্তারের আশ্বাস দিলে অবরোধ তোলে নেন।
উল্লেখ্য, বুধবার দুপুরে শিবগঞ্জের লামাপাড়া এলাকায় জাকারিয়া মো. মাসুমকে ছুরিকাঘাত করা হয়। পেশায় ব্যবসায়ী মাসুম ছাত্রলীগের সুরমা গ্রুপের কর্মী। এমসি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা টিটু চৌধুরীর অনুসারীরা মাসুমকে ছুরিকাঘাত করে বলে অভিযোগ করেছে তার পরিবার। বিকেলে ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মাসুম মারা যায়। এঘটনার পর পরই সিলেটের রাজনৈতিক অঙ্গন উত্তপ্ত হয়ে ওঠে।

মতামত.........