,

সপ্তম শ্রেণির সরকারি ১০হাজার বই সহ গাইবান্ধায় গ্রেফতার-১

সুমন কুমার বর্মন, গাইবান্ধা প্রতিনিধি:
বাংলাদেশ জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের ২০১৮ শিক্ষাবর্ষের গাইবান্ধায় সপ্তম শ্রেণির ১০ হাজার সরকারি বইসহ রাজু আহম্মেদ (২৫) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
বুধবার দিবাগত রাত ১টার দিকে গাইবান্ধা জেলা শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে বইসহ তাকে গ্রেফতার করা হয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিষয়টি স্থানীয় সাংবাদিকদের নজরে আসে।
রাজু আহম্মেদ ঢাকার পরিবহন প্রতিষ্ঠান ইষা ট্রান্সপোর্টের স্কর্ট সুপারভাইজার। তিনি পটুয়াখালি জেলার বাউফল উপজেলার সূর্যমনি গ্রামের কাদের মল্লিকের ছেলে।
গাইবান্ধা সদর থানার পুলিশ ও এজাহার সুত্রে জানা যায়, ঢাকার সোসাইটি প্রিন্টার্স থেকে ইষা ট্রান্সপোর্টের স্কর্ট সুপারভাইজার রাজু আহম্মেদ ও ট্রাকচালক আবদুর রাজ্জাক একটি ট্রাক নিয়ে গত ২৮ অক্টোবর ঢাকা থেকে সপ্তম শ্রেণির বই নিয়ে গাইবান্ধার উদ্দেশ্যে রওনা দেন। পরে গাইবান্ধা পৌঁছে বইগুলো গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ, সাঘাটা ও ফুলছড়ি উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে বুঝে দেওয়ার কথা থাকলেও গোবিন্দগঞ্জ ও ফুলছড়ি উপজেলায় চালান অনুযায়ী সব বই বুঝে দেওয়া হয়। শুধু গত মঙ্গলবার বিকেলে সাঘাটা উপজেলায় সাতটি বিষয়ের জন্য চার হাজার ৪০০টি করে বই দেওয়া হয়।
কম বুঝে দেওয়া সাঘাটা উপজেলার ১০ হাজার বই ট্রাকটিতে থেকে যায়। এরমধ্যে রয়েছে দুই হাজার বাংলা, দুই হাজার ইংরেজী, দুই হাজার গণিত, দুই হাজার বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয় এবং দুই হাজার সাধারণ বিজ্ঞান বই। এসব বই আত্মসাত করার উদ্দেশ্যে গোবিন্দগঞ্জের একটি কম্পিউটারের দোকান থেকে ভুয়া ডেলিভারি চালান তৈরি করা হয়।
পরে রাজু আহম্মেদ গতকাল বুধবার রাত আটটার দিকে ট্রাকের বইসহ গাইবান্ধা বাসস্ট্যান্ডে যায় ও বইগুলো বিক্রি করার চেষ্টা করে। পরে রাত একটার দিকে একটি পিকআপ ভ্যান ট্রাকটির কাছে আনলে ট্রাক চালক আবদুর রাজ্জাকের সন্দেহ হলে তিনি ইষা ট্রান্সপোর্টকে বিষয়টি জানান। পরে গাইবান্ধা সদর থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ গিয়ে রাজু আহম্মেদকে গ্রেফতার করে বইসহ ট্রাকটি থানায় নিয়ে যায়।
সাঘাটা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আহসান হাবিব বলেন, ২০১৮ সালে সাঘাটায় সপ্তম শ্রেণির প্রতিটি বিষয়ের জন্য দরকার ছয় হাজার ৪৪৩টি করে বই। এরমধ্যে সাত বিষয়ের জন্য চার হাজার ৪০০টি করে বই আমি গত মঙ্গলবার বিকেলে চালান মূলে পেয়েছি।
গাইবান্ধা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খাঁন মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, গোবিন্দগঞ্জ ও ফুলছড়িতে বই ঠিকমতো বুঝে দিয়েছে রাজু  আহম্মেদ। সাঘাটা উপজেলায় কম দেওয়া ১০ হাজার বই আত্মসাতের চেষ্টা করার অভিযোগে রাজু আহম্মেদকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই ঘটনায় ইষা ট্রান্সপোর্টের স্বত্বাধিকারীর ছোট ভাই শরিফুল ইসলাম বাদী হয়ে গাইবান্ধা সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মতামত.........