,

শৈলকুপায় শিক্ষক লাঞ্চিতের ঘটনায় অভিযোগ তুলতে চাপ প্রয়োগ

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি-

শৈলকুপার ৫৮নং লক্ষনদিয়া সরকারি প্রা. বিদ্যালয়ে শিক্ষক লাঞ্চিতের ঘটনা ঘটেছে। এ ব্যাপারে বিদ্যালয়টির সহকারি শিক্ষক বারইহুদা গ্রামের হাবিবুর রহমান উপজেলা শিক্ষা অফিসে লিখিত অভিযোগ করেছে।

স্কুল পার্শ্ববর্তী কুমিড়াদহ গ্রামের অভিযুক্ত জাহিদ ও তার বাবা হামিদুল ইসলাম নানা ভাবে অভিযোগ তুলে নিতে চাপ প্রয়োগ করছে বলে জানা গেছে।

লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায়, ৭ অক্টোবর বিদ্যালয়ের ১ম সিফটের ছুটির পর প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থী জ্যোতি ও রুনীর মধ্যে একটি কলম নিয়ে বিবাদ বাধে। শিক্ষক হাবিবুর রহমান বলেন, কুমিড়াদহ গ্রামের আমিরুল ইসলামের মেয়ে রুনির নিকট থেকে একই গ্রামের জাহিদের মেয়ে জ্যোতি একটি কলম কেড়ে নিয়ে বাড়িতে চলে যায়। রুনির কান্নাকাটির কারনে শিক্ষক হাবিবুর রহমানের নির্দেশে স্কুলের অন্য ছেলেরা কলমটি ফেরত আনতে গিয়ে বিবাদের সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে জাহিদ ও তার পিতা হামিদুল ইসলাম স্কুলে এসে শিক্ষক হাবিবুর রহমানের উপর চড়াও হয়ে মারধর করে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করার পর লাঞ্চিত শিক্ষক ৩ দিনের ছুটিতে যায়।

অপর দিকে লিখিত অভিযোগ তুলে নেওয়ার জন্য শিক্ষক হাবিবুর রহমানের উপর একাধিক প্রভাবশালী ব্যক্তি নানা ভাবে চাপ প্রয়োগ করছে বলে জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার জানান, লক্ষনদিয়া স্কুলের শিক্ষক লাঞ্চিতের লিখিত অভিযোগ তদন্ত পূর্বক পরবর্তি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মতামত.........