,

রহস্যজনকভাবে চট্টগ্রামে গৃহবধূর মৃত্যু, স্বামী পলাতক

চট্টগ্রাম করেসপন্ডেন্ট-

বন্দরনগরী চট্টগ্রামের কোতয়ালী থানার আলকরণ এলাকার নিজ বাসায় এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। আজ শনিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) পুলিশ আফসানা আক্তার শান্তা (২৮) নামে এই গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে।

তবে তার স্বামী শাহআলম মিঠু (৩০) এবং পাঁচ বছরের মেয়ে মুশফিসহ তার কোস স্বজনকে পাওয়া যায়নি বলে পুলিশ জানায়।
নগর পুলিশের কোতয়ালী জোনের সহকারী কমিশনার (এসি) মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, শান্তার শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তার মরদেহ খাটের উপর পড়েছিল। তবে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে থাকা একটি ওড়না পেয়েছি। শান্তা আত্মহত্যা করেছে নাকি তাকে হত্যা করেছে সে বিষয়টি এখনো আমরা নিশ্চিত সা। তার মৃত্যুর পর স্বামী সন্তানকে নিয়ে পালিয়ে গেছে।

কোতোয়ালী থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, স্বামী শাহ আলম মিঠুর বাড়ি আনোয়ারা উপজেলায়। সে নগরীর জলসা মার্কেটের দোকানকর্মী। অপর দিকে শান্তার বাড়ী কুমিল্লার নগরীর কাশারীপট্টি এলাকায়। তার বাবার নাম বেলাল হোসেন। সাত বছর আগে শান্তার সঙ্গে বিয়ে হয় মিঠুর।

প্রতিবেশীদের বরাত দিয়ে এসি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, পরকীয়া সংক্রান্ত বিষয়ে মিঠু তার স্ত্রীকে সন্দেহ করতেন। বিভিন্ন সময় তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়েছে, যা সমাধান করেছেন প্রতিবেশী ও আত্মীয়স্বজনরা। হতে পারে, গত রাতে ঝগড়া হয়েছিল। এর জেরে শান্তা আত্মহত্যা করেছে। ভয়ে মিঠু তার মেয়েকে নিয়ে চলে গেছে। অথবা সে নিজেই খুন করে আত্মহত্যার নাটক সাজানোর জন্য ফ্যানের সঙ্গে ওড়না ঝুলিয়ে রেখেছিল। তবে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মিঠুকে মেয়ে নিয়ে বাসা থেকে বেরিয়ে যেতে কয়েকজন প্রতিবেশী দেখেছেন বলে জানান জাহাঙ্গীর আলম।

মতামত.........