,

মাধবদী পৌর প্যানেল মেয়র সালাহ উদ্দিন আর নেই: শোকে কাঁদছে মাধবদী

মোঃ আল আমিন, মাধবদী (নরসিংদী) সংবাদদাতা ঃ

মাধবদী পৌরসভার প্যানেল মেয়র, ৫নং ওয়ার্ড (দক্ষিন বিরামপুর) এর ৩ বারের নির্বাচিত কাউন্সিলর ও শহর ছাত্র দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাজ্বী সালাহ উদ্দিন (৪৫) মস্তিস্কে রক্তক্ষরন (ব্রেন স্টোক) জনিত কারণে গত ১৪ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫ টায় ঢাকার এ্যাপোলো হাসপাতালে মৃত্যুবরন করেন (ইন্নালিল্লাহে ওয়া ইন্না ইল্লাহে রাজেউন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ১ ছেলে, ১ মেয়ে, ৪ ভাই ও ৩ বোন সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

সালাহ উদ্দিন ২০০৩ সালে মাধবদী পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ার পর আর পিছু ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। এরপর ২০১১ সালের ফেব্রুয়ারীর নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে বিপুল ভোটে জয় লাভ করেন তিনি। পরে ২০১৬ সালের জানুয়ারীতে বিনা প্রতিদ্ধন্ধিতায় কাউন্সিলর নির্বাচিত হন তিনি। ২০১৬ সালে মাধবদী পৌরসভার নির্বাচনের পর তাকে মাধবদী পৌরসভার প্রথম প্যানেল মেয়র নির্বাচিত করা হয়। তিনি দীর্ঘ ১৩ বছর যাবৎ মাধবদী পৌরসভার কাউন্সিলর হিসেবে সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করেছেন। হাজ্বী সালাহ উদ্দিন বিএনপি’র রাজনিতির সাথে জরিত ছিলেন। তিনি বর্তমানে নরসিংদী জেলা যুব দলের যুগ্ন আহবায়ক পদে ছিলেন ও মাধবদী শহর ছাত্র দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

গত বৃহস্পতিবার বিকেলে মাধবদী পৌরসভা কার্যালয়ে হঠাৎ তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে জরুরী ভিত্তিতে ঢাকার এ্যাপোলো হাসপাতালে নেয়ার পথে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। তার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। তার মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে দুর দুরান্ত ও আশপাশের এলাকার সকল স্থরের হাজার হাজার লোকজন তাকে একনজর দেখার জন্য মাধবদী পৌরশহরের দক্ষিন বিরামপুর তার নিজ বাড়িতে রাতভর প্রচন্ড ভীড় জমায়। পরে ১৫ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকাল ১০ টায় মাধবদী সতী প্রসন্ন উচ্চ বিদ্যালয়ের বড় মাঠে তার জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। জানাযা নামাজে হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতে মনে হয়েছে এটাই মাধবদীর সবচেয়ে বড় জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উক্ত জানাযায় অংশগ্রহন করেন বাংলাদেশ শিল্প মন্ত্রনালয়ের সিনিয়র সচীব মোশাররফ হোসেন ভূইয়া, সদর থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব সফর আলী ভ’ইয়া, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব সালাহ উদ্দিন আহম্মেদ, মাধবদী পৌর মেয়র ও শহর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব মোশাররফ হোসেন প্রধান মানিক, সাবেক পৌর মেয়র আলহাজ্ব শফি উদ্দিন আহম্মেদ, থানা বিএনপি’র সভাপতি ও নূরালাপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবু সালেহ চৌধূরী, থানা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও মাধবদী পৌর কাউন্সিলর মনিরুজ্জামান মনির শাহ, বিএনপি নেতা হারুনুর রশিদ, উপজেলা বাইস চেয়াম্যান কবির আহম্মেদ, জজ ভুইয়া গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফায়জুর রহমান ভ’ইয়া জুয়েল, মাধবদী সতী প্রসন্ন উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক এম এ হান্নান, মরহুমের বড় ভাই মাধবদী হাই স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক হেলাল উদ্দিন, মাধবদী শহর বিএনপির সভাপতি আমান উল্লাহ আমান, মরহুমের বাল্য বন্ধু হাজী রফিকুল ইসলাম, ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ শেখ ফরিদ, মাধবদী পৌরসভার সচিব কাজী মোস্তফা কামাল সরকার সহ আওয়ামীলীগ, বিএনপি’র নেতৃবৃন্দ ও পৌর কাউন্সিলর, কর্মচারী ও কর্মকর্তাবৃন্দ, স্থানীয় শিক্ষক, সাংবাদিকসহ সর্বস্থরের হাজার হাজার লোক উপস্থিত ছিলেন। জানাযা শেষে স্থানীয় বিরামপুর দড়িপাড়া গোরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয়। দাফন শেষে দোয়া করে মরহুমের আতœার মাগফেরাত কামনা করেন হাজার হাজার মুসল্লিরা।

মতামত.........