,

মাধবদী পৌর কর্মকর্তা কর্মচারীদের পূর্ণ দিবস কর্ম বিরতি পালন

মোঃ আল আমিন, মাধবদী (নরসিংদী) সংবাদদাতা-

সরকারী রাজস্ব খাত থেকে শতভাগ বেতন-ভাতা ও পেনশন সহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা পাওয়ার দাবীতে বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস এ্যাসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কমিটির আহবানে স্থানীয় কমিটির উদ্যোগে ১৩নভেম্বর সোমবার সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত মাধবদী পৌরসভা কার্যালয়ের সামনে পৌরসভা কর্মকর্তা-কর্মচারী এসোসিয়েশনের ব্যানারে পুর্ণদিবস কর্ম বিরতি ও অবস্থান কর্মসূচী পালন করা হয়।

এ সময় তারা দাপ্তরিক সকল কাজ বন্ধ রেখে পৌরসভা কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেন।

পূর্ণদিবস কর্ম বিরতির কর্মসুচীতে মাধবদী পৌরসভার মেয়র হাজী মোঃ মোশাররফ হোসেন প্রধান মানিক কর্মকর্তা কর্মচারীদের দাবীর সাথে একাত্বতা ঘোষনা করেন ও নিজের সমর্থন প্রদান করেন। ওই সময় কর্মসূচী থেকে তারা দাবি করেন, পৌরসভার নিজস্ব আয় থেকে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারিদের বেতন-ভাতা প্রদানের যে বিধান রয়েছে, এতে দেশের প্রায় ৮০ ভাগ পৌরসভা তাদের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের বেতন-ভাতা প্রদান করতে পারে না। ফলে দেশের সকল পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারিরা নিয়মিত বেতন-ভাতা না পাওয়ায় পরিবার-পরিজন নিয়ে অর্ধাহারে, অনাহারে মানবেতর জীবন-যাপনে বাধ্য হচ্ছেন। অবসরে যাওয়ার পর পেনশন পাচ্ছেন না। তারা এ অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে আসছে বিজয়ের মাস ডিসেম্বর মাসের মধ্যেই সরকারি কোষাগার থেকে তাদের বেতন-ভাতা প্রদান করতে সরকারের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান।

অন্যথায় তাদের এ যোক্তিক দাবী না মানা পর্যন্ত চলমান কর্মসূচী আরো কঠোর হবে বলে হুসিয়ারী দেন।

মাধবদী পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মনিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে কর্ম বিরতি শেষে বক্তৃতা করেন, পৌরসভার সচিব কাজী মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল, উপ-সহকারী প্রকৌশলী রিতেশ চন্দ্র পোদ্দার, কর-নির্ধারক মোঃ আতাউর রহমান, সহকারী কর আদায়কারী মোঃ হানিফ, প্রধান সহকারী (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ বজলুর রহমান।

উপস্থিত ছিলেন সহকারী প্রকৌশলী মোঃ আমিনুল ইসলাম, হিসাব রক্ষন কর্মকর্তা কামরুন নাহার, উপ-সহকারী প্রকৌশলী জনাব মোঃ মহিউদ্দিন, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোঃ আরিফ আকন্দ, হিসাব রক্ষক মোঃ পনির হোসেন মোল্লা, বাজার পরিদর্শক চন্দন কুমার দে, লাইসেন্স পরিদর্শক মোঃ সফিকুর রহমান, সহকারী কর আদায়কারী মোঃ আলমগীর, রিপন, স্যানেটারী ইন্সপেক্টর মোসাঃ খোদেজা বেগম, স্বাস্থ্য সহকারী শাহিনা বেগম, নক্সাকার ইমরুল কায়েছ, সার্ভেয়ার নাজির আহমেদ, হিসাব সহকারী মাহমুদুল হাসান সহ প্রমুখ।

মতামত.........