R C Cহাবিব আহমেদ, রাজশাহী জেলা প্রতিনিধি :

ভারপ্রাপ্ত মেয়রের ভারে কুঁজো হয়ে গেছে রাজশাহীবাসী। রাজশাহী নগরবাসী আর চায় না এই হোল্ডিং ট্যাক্সের নির্যাতন। এখান থেকে তারা মুক্তি চাই। রাজশাহী সিটি করপোরেশন নগরবাসীর ওপর চাপিয়ে দিয়েছে অবৈধ এ হোল্ডিং ট্যাক্সের বোঝা’।
২৮শে জুলাই বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় রাসিককে প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালনের সময় রাকসুর সাবেক ভিপি ও বর্ধিত হোল্ডিং কর প্রতিরোধ কমিটির আহবায়ক রাগিব আহসান মুন্না এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, আগের হোল্ডিং ট্যাক্সে যে পরিমান ছিল তার থেকে অনেক বেশি করে দেয়া হয়েছে। এতে আমরা নগরবাসি পক্ষে দেয়া সম্ভব হয়ে উঠছে না। ফলে নগরবাসির মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।
প্রায় ঘন্টাব্যাপী চলা এ কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন সিপিবি নেতা এনামুল হক, এ্যাড. আবু রায়হান, দেবাশীষ রায়, মুরাদ মোর্শেদ এছাড়াও সিপিবি, বাসদ ও গণসংহতি আন্দোলনের নেতৃবৃন্দসহ প্রায় শতাধিক নেতাকর্মী।
এছাড়াও এ কর্মসূচিতে, বর্ধিত কর প্রত্যাহারের দাবিতে সাত দিনের আল্টিমেটাম দেয়া হয়। সাত দিনের মধ্যে বর্ধিত কর প্রত্যাহার করা না হলে বৃহত্তর আন্দোলনের ঘোষণা দেয়া হয়।
এর আগে সকাল ৯টায় রাজশাহী মহানগরীর সাহেব বাজার জিরোপয়েন্টের ভুবন মোহন পার্কে এক গনজামায়েত করার চেষ্টা করলে পুলিশি বাধায় তা পন্ড হয়ে যায়। পরে সেখান থেকে একটি মিছিল রাসিকের প্রধান ফটকের সামনে এসে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন।
পরে নাগরিক অধিকার সংরক্ষন সংগ্রাম পরিষদের নেতৃবৃন্দ রাসিকের ভারপ্রাপ্ত মেয়র নিযাম উল আযিমের ব্যাক্তিগত সহকারী আজমির আহমেদ মামুনের হাতে স্মারকলিপি তুলে দেন।

ভারপ্রাপ্ত মেয়রের ভারে কুঁজো হয়ে পড়ছে রাজশাহীবাসী

মতামত.........