,

বিচ্ছিন্নভাবে রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে উখিয়ায় আটক-৬

কক্সবাজার করেসপন্ডেন্ট-

কক্সবাজারের উখিয়ার রত্মপালং রুহুল্লার ডেবা মাদরাসায় রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে ৬ জনকে আটক করেছে উপজেলা প্রশাসন। এ সময় বিতরণের জন্য আনা ২৪৮ প্যাকেট ত্রাণও জব্দ করা হয়েছে। আটকদের মধ্যে ৪জন রোহিঙ্গা।

পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আটকদের ১৪হাজার টাকা জরিমানা করে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়েছে। উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিকারুজ্জামান তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

জেলা প্রশাসন ব্যতিত বিচ্ছিন্নভাবে ত্রাণ বিতরণকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত জানানোর এক দিনের মাথায় এ ঘটনা ঘটল।

আটকরা হলেন, ঢাকার ৭৯নং সূত্রাপুর এলাকার মোহাম্মদ সেন্টুর ছেলে মো. আসিফ (২২), উখিয়ার পশ্চিম রত্নাপালং এলাকার ফরিদ আহমদের ছেলে ইকবাল হোসেন (৩২), কুতুপালং শরণার্থী ক্যাম্পের মৃত লাল মোহাম্মদের ছেলে আমির হোসেন (৫২), মৃত মকবুল আহমদের ছেলে নুরুল ইসলাম (৬০), ইয়াকুব আলীর ছেলে ছৈয়দুল আমিন (৫১) ও আবুল খায়েরের ছেলে শামশুল আলম (৪৮)।

আটকদের মাঝে আসিফকে ৩ হাজার ও ইকবাল হোসেনকে ৭ হাজার টাকা এবং বাকি আটক রোহিঙ্গাদের প্রত্যেককে এক হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

ইউএনও নিকারুজ্জামান জানান, রত্নাপালং ইউনিয়নের রুহুল্লার ডেবা মাদরাসায় রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হচ্ছে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা সেখানে অভিযান চালাই। এসময় ২৪৮ প্যাকেট ত্রাণসহ ৬জনকে আটক করি। তাদের মধ্যে ২জন বাংলাদেশি ও ৪জন রোহিঙ্গা। প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া ও ক্যাম্পের বাইরে ত্রাণ বিতরণের অভিযোগে তাদেরকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে শাস্তি দেয়ার পর স্থানীয় চেয়ারম্যানের জিম্মায় দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি উদ্ধার করা ত্রাণ আমাদের কন্ট্রোল রুমে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। পরে এসব ত্রাণ রোহিঙ্গাদের মাঝে বিতরণ করা হবে।

মতামত.........