,

বাংলাদেশকে জঙ্গি নির্মূলে সহায়তা দিতে ‘তৈরি’ যুক্তরাষ্ট্র

133602_163আন্তর্জাতিক ডেস্ক, সংবাদ সবসময় :

বাংলাদেশকে জঙ্গি নির্মূলে সহায়তা দিতে ‘তৈরি’ আছে যুক্তরাষ্ট্র গুলশানে ক্যাফেতে জঙ্গি হামলার প্রেক্ষাপটে শেখ হাসিনাকে ফোন করে বাংলাদেশে অবস্থিত জঙ্গিদের নির্মূলে বাংলাদেশকে সব ধরনের সহযোগিতা দিতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের পক্ষ থেকে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি রোববার রাতে টেলিফোন করে একথা জানান বলে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম জানিয়েছেন।

জঙ্গিবাদের বিষয়ে অনুসন্ধানমূলক তথ্য দিয়ে বাংলাদেশকে সহযোগিতা করতেও আগ্রহ দেখিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। গত শুক্রবার হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলা চালিয়ে ১৭ বিদেশিসহ ২০ জনকে হত্যা করা হয়। নিহতদের মধ্যে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত যুক্তরাষ্ট্রের এক নাগরিকও রয়েছেন। কেরির মাধ্যমে শেখ হাসিনার কাছে পাঠানো বার্তায় ওবামা এই হামলার নিন্দা জানিয়ে হতাহতদের প্রতি সহানুভূতি প্রকাশ করেন। বাংলাদেশে এই ধরনের হামলা এটা প্রথম হলেও যুক্তরাষ্ট্র বেশ কয়েকবার এই ধরনের ঘটনার মুখোমুখি হয়েছে।

প্রেস সচিব বলেন, “বারাক ওবামার পক্ষে জন কেরি বলেছেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গি নির্মূলে বাংলাদেশকে যে কোনো ধরনের সহযোগিতা করতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সব সময় প্রস্তুত রয়েছে।

“প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে কেরি বলেছেন, অনুসন্ধানমূলক তথ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশকে সহযোগিতা করতে পারে।” কেরির সঙ্গে কথায় জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলার জন্য বাংলাদেশ পুলিশের ‘কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট’ গঠনের কথাও জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশের পাশে থাকার জন্য বারাক ওবামাকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

ঢাকায় নজিরবিহীন এই হামলার দায়িত্ব স্বীকার করে ইতোমধ্যে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক আন্তর্জাতিক জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের নামে দায় স্বীকারের বার্তা এসেছে ইন্টারনেটে। তবে পুলিশ প্রধানেএ কে এম শহীদুল হক বলেছেন, গুলশানে ক্যাফেতে হামলার পর কমান্ডো অভিযানে নিহতরা বাংলাদেশের জঙ্গি সংগঠন জেএমবির সদস্য।

মতামত.........