,

নড়াইলে হামলায় তিন এসআইসহ ৫ পুলিশ আহত, ইউপি চেয়ারম্যান মতিয়ারসহ গ্রেফতার ৬

14670587336সৈয়দ খায়রুল আলম, নড়াইল প্রতিনিধিঃ
নড়াইলের কাশিপুর ইউপি চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমানের সমর্থকদের হামলায় তিন এসআইসহ পাঁচ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান মতিয়ারকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার (৩ আগস্ট) রাত ১১টার দিকে লোহাগড়া থানা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতদের লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। লোহাগড়া পৌরসভা নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে।
এদিকে, এ হামলায় ঘটনায় গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে কাশিপুর ইউপি চেয়ারম্যান মতিয়ারসহ ২০০জনের নামে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। এছাড়া পাঁচকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
এর আগে বুধবার রাত ৯টার দিকে লোহাগড়া পৌর এলাকার কচুবাড়িয়া এলাকা থেকে দু’টি পিস্তলসহ উজ্জ্বল (৩৪) নামে এক যুবককে আটক করে পুলিশ। উজ্জ্বলের বাড়ি লোহাগড়ার তেলকাড়া গ্রামে। অভিযোগ রয়েছে, লোহাগড়া পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী শরিফুল ইসলামের নির্বাচনী প্রচারণাকালে উজ্জ্বলকে অস্ত্রসহ আটক করা হয়। এ ঘটনায়ও পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে। কাশিপুর ইউপি চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমানের সমর্থকদের অভিযোগ, আটককৃত উজ্জ্বল মতিয়ার রহমানকে হত্যার উদ্দেশ্যে অস্ত্র নিয়ে কচুবাড়িয়া এলাকায় আসেন। তবে, আটককৃত উজ্জ্বল মেয়র প্রার্থী শরিফুল ইসলামের সমর্থক নয় বলে দাবি করেছেন তিনি।
এ ঘটনায় উজ্জ্বলের শাস্তির দাবিতে বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে কাশিপুর ইউয়িনের চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমানের সমর্থকেরা লোহাগড়া থানা এলাকায় জড়ো হয়। তাদের ছত্রভঙ্গ করতে গেলে পুলিশের ওপর হামলা চালায় তার সমর্থকেরা। এ হামলায় লোহাগড়া থানার এসআই শিমুল, নাসির ও মিহিরসহ পাঁচ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন বলে জানানো হয়। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ সটগানের ১৫ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোঁড়ে। ইউপি চেয়ারম্যান মতিয়ার ও তার সমর্থকেরা লোহাগড়া পৌর নির্বাচনে আ’লীগের অপর বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী আশরাফুল আলমের পক্ষে প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে আসছেন বলে জানিয়েছেন ভোটারসহ পৌরবাসী।
নড়াইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম জানান, ইউপি চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমানের লোকজন পুলিশের ওপর হামলা করলে পাঁচ পুলিশ আহত হন।
প্রসঙ্গত, আগামি ৭ আগস্ট লোহাগড়া পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে

মতামত.........