,

ঠাকুরগাঁওয়ে কৃষি জমিতে নতুন নতুন ইটভাটা, নিরব প্রশাসন

কামরুল হাসান, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি-

ঠাকুরগাঁওয়ে অবৈধভাবে গড়ে উঠছে নতুন নতুন ইটভাটা। তবে এ বিষয়ে প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিরব ভুমিকা পালন করা হচ্ছে। আর কৃষি বিভাগ বলছে, কৃষি জমির উপড় যেন ইটভাটা তৈরি করতে না পারে এ বিষয়ে দ্রুত জেলা সমন্বয় কমিটির মিটিংয়ে সিদ্ধান নেয়া হবে।

ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ, হরিপুর, রাণীশংকৈল, বালিয়াডাঙ্গী ও সদরসহ ৫টি উপজেলায় প্রায় ৭০টি ইটভাটা ইতোমধ্যে গড়ে উঠেছে। আগামী মৌসুমের জন্য আরো গড়ে উঠছে নতুন নতুন ইটভাটা। আর গড়ে উঠা পুরাতন ইটভাটাগুলোর বেশিরভাগই নেই পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র। তবু প্রতিবছর স্থানীয়ভাবে প্রশাসনকে ম্যানেজ করে ইট তৈরি করে যাচ্ছে ভাটা মালিকরা। এর উপড় আবার পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ছাড়াই জেলায় নতুন করে গড়ে উঠতে শুরু করেছে বেশ কয়েকটি ইটভাটা। অবৈধভাবে কৃষি জমিতে যেনো ইটভাটা তৈরি করতে না পারে সেকারনে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানগন উপজেলা সমন্বয় কমিটির মিটিংয়ে অভিযোগ করেন। তার পরও প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন রকম ব্যবস্থা না নিয়ে নিরব ভূমিকা পালন করছে। ফলে কৃষি জমির উৎপাদন কমে যাওয়ার পাশাপাশি পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতির শিকার হচ্ছে বলে মনে করছেন পরিবেশবিদ ও কৃষি সংশ্লিষ্টরা।

আকচাঁ ইউনিয়নে নীমবাড়ি এলাকায় নতুন গড়ে উঠা ইটভাটা মালিক রমজান আলী জানান, বৈধ সকল কাগজ পত্রের জন্য আবেদন করা হয়েছে। ভাটায় আগুন দেয়ার আগেই বৈধ কাগজ পত্র হাতে পাবো। সেগুলো সব দপ্তরের প্রেরন করা হবে।

সদর উপজেলার আকচাঁ ইউনিয়নের দক্ষিন বঠিনা গ্রামের সুলতান আলী, জয়নাল, সুধীর চন্দ্রসহ বেশ কয়েকজন কৃষক জানান, আমাদের এই ইউনিয়নে এতো বেশি ইটভাটা যার সবগুলো আবাদি জমিতে। প্রভাবশালীরা ইটভাটা করলে আমরা কিছু বলতে গেলে হুমকি আসে। ইট ভাটার জন্য প্রতিবছর ফসল উৎপাদনে লোকসান গুনতে হচ্ছে। আমরা চাই আর যেনো কোন ভাটা গড়ে না উঠে।
আকচাঁ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সুব্রত কুমার বর্মন জানান, শুধু আমার ইউনিয়নে ১৩টি ইটভাটা রয়েছে আর নতুন করে আরো ৩টি ভাটা তৈরি হচ্ছে। আমি সদ্য গড়ে উঠছে এমন ইটভাটা বন্ধে ভাটা মালিক ও উপজেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির মিটিংয়ে লিখিতভাবে অভিযোগ করেছি। আশা করছি এসব ভাটা বন্ধের জরুরি উদ্যোগ নিবে প্রশাসন।

এ বিষয়ে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক এ কে এম মাউদুদুল হক জানান, এ বিষয়ে দ্রুত জেলা প্রশাসনের উন্নয়ন সমন্বয় মিটিংয়ে নতুন গড়ে উঠছে ভাটাগুলো বন্ধের দাবি জানানো হবে। আশা করছি প্রশাসন কার্যকর পদক্ষেপ নিবেন।

জেলা প্রশাসনের হিসাব মতে, জেলার ৫টি উপজেলায় প্রায় ৭০টি ইটভাটা রয়েছে। এর মধ্যে প্রায় ১০টির বেশি হাওয়া ভাটা। আর বাকিগুলো খড়ি ও কয়লা দিয়ে ইট পুড়িয়ে আসছে ভাটা মালিকরা।

মতামত.........