,

টিএমএসএস’র দুই কর্মচারীর ঘুষ বাণিজ্য, আতঙ্কে মুখ খুলছেন না গ্রাহকরা

সিলেট প্রতিনিধি:
সিলেট জেলার ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার মাইজগাঁও টিএমএসএস অফিসের দুই কর্মচারীর ঘুষ বাণিজ্য চলছে ব্যাপকহারে। লক্ষ টাকা ঋণ নিতে হলে হাজার টাকা ঘুষ দিতে হয়। উজ্জল (২৮) ও ফিরোজ আলম (২৮) উভয় মিলে ঘুষের এই সিন্ডিকেট গড়ে তুলেছে। লক্ষ টাকার লোন এ ঘুষের রেইট এক হাজার থেকে দুই হাজার টাকা পর্যন্ত।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে সমিতির কিছু সংখ্যক গ্রাহক জানান, তাদের  এই রেইটের টাকা না দিলে লোন পাওয়া যায় না আর যদি এ বিষয়ে কেহ মুখ খুলে তাহলে লোনতো পাওয়া যায়না উপরন্তু হয়রানির শিকার হতে হয়। এই কারনে কোন গ্রাহক টিএমএসএস এর উপর মহলের কারও সাথে মুখ খুলতে চাচ্ছেন না। যদি মুখ খুলেন তাহলে ২য় বার প্রয়োজনে ঋণ চাইলে ঋণ পাওয়াতো যাবেনা শুধু শুধু হতে হবে ভোগান্তির শিকার।
গ্রাহকরা বলেন আমরা বেশির ভাগই গরীব, মধ্যবিত্ত পরিবার এবং বেশির ভাগই ঋণ গ্রহন করি ক্ষেত খামার বা ব্যবসা বানিজ্যের জন্য এবং আমরা ঋণ গ্রহন করলে টিএমএসএস সংস্থার লাভ ও আমরা যারা ঋণ উত্তলন করি তাদেরও লাভ।
কিন্তু ঐ টিএমএসএস সংস্থা সাধারণ মানুষকে ঋণ দিচ্ছে ঠিকই এবং সাধারণ মানুষকে যাতে বিরক্ত না করা হয় সে দিকে খেয়াল রাখলেও দুই কর্মকর্তার ঘুষ বানিজ্যের বিষয়টি চাপা পড়ে থাকে। তাই সাধারণ মানুষের দাবি এ বিষয়টি টিএমএসএস সংস্থার উপর মহলের নজরদারী নিয়ে আসার জন্য।

মতামত.........