,

ঝিনাইদহে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান, বিভিন্ন হার্ডওয়ারের দোকানে জরিমানা

ঝিনাইদহ সংবাদদাতা-

ঝিনাইদহে বিক্রয় নিষিদ্ধ স্পিরিট বিক্রির অপরাধে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শহরের পাগলা কানাই মোড়, অগ্নিবীনা সড়ক, মাওলানা ভাষানী সড়কের বিভিন্ন দোকানে এ অভিযান চালানো হয়।

আদালত সুত্রে জানা যায়, জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের দেওয়া সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল সুলতান জুলকার নাইন কবির বিভিন্ন দোকানে অভিযান চালায়। সে সময় তারপিন ও বার্ণিশে স্পিরিট মিশিয়ে বিক্রি করার অপরাধে পাগলা কানাই সড়কের মোল্লা হার্ডওয়ার, এসএ হার্ডওয়ার, মিরা হার্ডওয়ার, অগ্নিবীনা সড়কের সোনালী হার্ডওয়ার ও মাওলানা ভাসানী সড়কের মাজেদা হার্ডওয়ারে সর্বমোট ১৫হাজার টাকা জরিমানা করা হয় এবং জব্দকৃত মালামাল ধ্বংস করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতে জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের পরিদর্শক রাসেল আলী, এএসআই শেখ আব্বাস উদ্দিন আহমেদ, পাপিয়া সুলতানা, সিপাই সাইদুল হক, আব্দুল আজিজ খান উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, অভিযুক্ত হার্ডওয়ার ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করে বলেছেন, তাদের দোকানে কোন স্প্রীট ছিলনা। কাঠে ও গ্রীলে রং করার জন্য বার্নিশ ও থিনার ছিল। ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেট ও মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তাকে বার বার পরীক্ষা করে দেখার জন্য বলা হলেও তা কর্নপাত করেননি তারা। তাদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে জরিমানা করে বার্নিশ ও থিনার পাশের ড্রেনে ফেলে দিয়েছেন। এতে তারা অর্থনৈতিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন। এব্যাপারে তারা আদালতের আশ্রয় নেবেন বলে প্রাথমিক ভাবে জানিয়েছেন। তারা আরও জানিয়েছেন হার্ডওয়ারের দোকানে রঙের কাজে ব্যবহারের জন্য তারপিন, থিনার ও বার্নিশ থাকাটায় স্বাভাবিক।

মতামত.........