,

জেএসসি পরীক্ষায় নকলে সহযোগিতার দায়ে গোপালগঞ্জে ১১ জনের দন্ড

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি :

গোপালগঞ্জে জেএসসি পরীক্ষায় নকলে সহযোগিতা করার অভিযোগে ১০ জনকে জেল-জরিমানা ও এক জনের নামে নিয়মিত মামলা দায়েরের জন্য থানায় পাঠিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রবিবার গণিত পরীক্ষা চলাকালে জেলা শহরের এস.এম. মডেল হাই স্কুল, শেখ হাসিনা স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং স্বর্ণকলি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের বাইরে থেকে দুই নারীসহ ৬ জনকে এবং মুকসুদপুর ডিগ্রী কলেজ কেন্দ্রের বাইরে থেকে ৫ জনকে আটক করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক আব্দুল্লাহ আল মামুন আটক তরিকুল ইসলাম (১৮), রহমত মোল্লা (৩৫), শেখর কুমার ভট্টাচার্যকে (২২) দুই বছর করে জেল এবং আরাফাত খান (২২), লাভলী আক্তার (৩৫) ও সাহিদা বেগমকে (৪০) এক হাজার টাকা করে জরিমানা করেছেন।

বিচারক আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, সাজাপ্রাপ্ত ওই তিন তরুণ কেন্দ্রের বাইরে থেকে মোবাইল ডিভাইস ব্যবহার করে নকল সরবরাহ করছিলেন এবং জরিমানা প্রাপ্তরা পরীক্ষা কেন্দ্রের নিয়ম ভঙ্গ করে কেন্দ্রের ভেতরে প্রবেশ করেছিলেন। সাজাপ্রাপ্তদের জেলা করাগারে পাঠানো হয়েছে এবং বাকি তিন জনের কাছ থেকে জরিমানা আদায় করে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

এদিকে মুকসুদপুর ডিগ্রী কলেজ কেন্দ্রের সামনে থেকে একই অপরাধে পাঁচ জনকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে তাদের মধ্যে চার জনকে জরিমানা ও একজনের নামে নিয়মিত মামলা করার জন্য আদেশ দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু নাঈম মোহাম্মদ মারুফ খান জানান, মো. আরিফ মল্লিক (১৯) ও হাসান মৃধাকে (২৭) ১০ হাজার টাকা করে এবং কাজল বিশ্বাস (২৭) ও মানব বিশ্বাসকে (২১) ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া শাহীন মুন্সিকে (১৭) থানায় পাঠানো হয়েছে তার নামে নিয়মিত মামলা দায়ের করার জন্য।

মতামত.........