,

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে ধানি জমি কেটে বালু উত্তোলনের অভিযোগ

লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে একটি প্রভাবশালী মহল।

এম শিমুল খান, গোপালগঞ্জ:

গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর উপজেলার পশারগাতি গ্রামের মধ্যপাড়ায় ধানি জমি কেটে বালু উত্তোলন করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে এলাকার প্রভাবশালী একটি মহল। এ নিয়ে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও কোনো প্রতিকার পাচ্ছে না ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকেরা।

অনুসন্ধানে জানা যায়, পশারগাতি গ্রামের মধ্যপাড়ায় এক ইউপি সদস্যের ভাই নিজস্ব ৬২শতক জমিতে ড্রেজার বসিয়ে বালু উত্তোলন করে বিভিন্ন জনের কাছে বিক্রি করে আসছে। এক পর্যায়ে পার্শ্ববর্তী ধানি জমি ধ্বসে পড়তে শুরু করলে কৃষকরা আতঙ্ক গ্রস্থ হয়ে পড়ে। এতে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক আকবার শেখ, আলতাব খান, মোকছেদ মোল্লা, হাাফিজুর রহমান বালু উত্তোলনে বাধা প্রদান করলে অভিযুক্তরা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে এবং কৃষকদের জমির টাকা অথবা জমির বদলে নেওয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করতে থাকে। উপায়ন্ত না দেখে কৃষকরা ধানি জমি হারানোর শঙ্কায় ওই প্রভাবশালী ভূমিদস্যুদের বালু কাটা বন্ধের জন্য জেলা প্রশাসক গোপালগঞ্জ বরাবর আবেদন করে। কিন্তু এ পর্যন্ত কোন প্রতিকার না পেয়ে জমি হারানোর ভয়ে বর্তমানে শঙ্কিত হয়ে পড়েছে ভুক্তভোগী কৃষকরা।

ভুক্তভোগী কৃষক মোকছেদ মোল্লা জানান, আমার ১৬শতাংশ জমি ভেঙে গেছে। এ ব্যাপারে প্রশাসনের বিভিন্ন জায়গায় জানিয়েও কোনো ফল পাইনি। এমনি অভিযোগ করেছেন আরো কয়েকজন কৃষক।

মুকসুদপুর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো: আক্তারুজ্জামান শাহিন জানান, আমার কাছে এ ধরনের কোনো নির্দেশনা বা অভিযোগ আসেনি। আসলে অবশ্যই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

মতামত.........