dhaka_19339_1468742358সংবাদ সবসময় ডেস্ক:

গুলশানে সন্ত্রাসী হামলাকারীদের আরেকটি আস্তানার সন্ধান পাওয়া গেছ।

রোববার (১৭ জুলাই) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা মহানগর পুলিশের ডেপুটি কমিশনার (পিআর) মাসুদুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, শনিবার (১৬ জুলাই) দিবাগত রাতে পশ্চিম শেওড়া পাড়ার ৪৪১/৮ নম্বর বাসায় অভিযান চালায় পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি)। অভিযান চালিয়ে বাড়ির মালিক নূরুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে। বাসাটিও জঙ্গিরা ব্যবহার করেছিল। যারা গুলশান হামলায় জড়িত। ওই বাসা থেকে গ্রেনেড ও কালো পোশাক পাওয়া গেছে।

নূরুল ইসলামের বিরুদ্ধে ভাড়াটিয়াদের তথ্য না নিয়েই বাড়ি ভাড়া দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। তবে জঙ্গিবাদের সঙ্গে তার কোনো সম্পৃক্ততা আছে কিনা তা জানা যায়নি।

এর আগে শনিবার বিকেলে গুলশানের রেস্টুরেন্টে জঙ্গি হামলায় জড়িতদের বাড়ি ভাড়া দেয়ার আগে তাদের নাম ঠিকানাসহ তথ্য না রাখায় নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির ভারপ্রাপ্ত সহ-উপাচার্যসহ (প্রোভিসি) তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

গত ১ জুলাই রাত পৌনে ৯টার দিকে গুলশানের হলি আর্টিসান বেকারি রেস্তোরাঁয় হামলা চালায় জঙ্গিরা। ১২ ঘণ্টার শ্বাসরুদ্ধকর জিম্মি সঙ্কটের সময় জঙ্গিরা ১৭ জন বিদেশিসহ ২০ জনকে হত্যা করে। তাদের বোমায় নিহত হোন দুই জন পুলিশ কর্মকর্তা। পরে জিম্মি উদ্ধার অভিযানে ওই রেস্তোরাঁর শেফ সাইফুল চৌকিদারসহ পাঁচ জঙ্গি নিহত হয়।

গুলশান হামলায় অংশ নেয়া নিবরাস ইসলাম নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র। আবার জিম্মি অবস্থায় জীবিত উদ্ধার হওয়া হাসনাত রেজাউল করিম ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক।

এ ছাড়াও কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানে হামলার সময় পুলিশের গুলিতে নিহত আবিরও নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র। ওই তিন কারণে জঙ্গি হামলার মদদদাতা হিসেবে সন্দেহের তির যখন নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের দিকে, ঠিক তখনই জানা গেল ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোভিসির বাসায় ভাড়া থেকেই পাঁচ জঙ্গি হামলা চালায় গুলশানের হলি আর্টিসান বেকারিতে।

গুলশানে সন্ত্রাসী হামলাকারীদের আরেকটি আস্তানার সন্ধান লাভ

মতামত.........