,

গাইবান্ধায় প্রতিপক্ষের কুড়ালের আঘাতে মৃত্যু হল কৃষকের

imagesসুমন কুমার বর্মণ, গাইবান্ধা (সদর) প্রতিনিধি:

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার কঞ্চিবাড়ী ইউনিয়নের ধুপনিবাজার এলাকায় জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের কুড়ালের আঘাতে আবদুর রহিম মিয়া (৪৬) গুরুতর আহত হয়। তাকে আশংকাজনক অবস্থায় গাইবান্ধা আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার সে মারা যায়।আবদুর রহিম সুন্দরগঞ্জ উপজেলার কঞ্চিবাড়ী ইউনিয়নের কঞ্চিবাড়ী ধুপনি গ্রামের আকরাম আলীর ছেলে।
স্থানীয় এলাকাবাসিরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে আবদুর রহিমের সাথে একই গ্রামের জহুরুল ইসলাম ও ছোলেমান মিয়ার মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। সম্প্রতি বিরোধপূর্ণ জমিতে ছোলেমান মিয়া ঘর তুলে বসবাস করে আসছিল। রোববার সন্ধ্যায় আবদুর রহিম ও জহুরুল ইসলামের লোকজনের সাথে ছোলেমানের বাকবিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে জহুরুল ও ছোলেমানের লোকজন আবদুর রহিমের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে কুড়াল দিয়ে মাথায় আঘাত করে। এতে আবদুর রহিম গুরুতর আহত হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে গাইবান্ধা আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।

সুন্দরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইসরাইল হোসেন সংবাদ সবসময়কে জানান, আবদুর রহিম তার লোকজন নিয়ে ছোলোমানের বসতবাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত হন আবদুর রহিম। পরে হাসপাতালে তিনি মারা যান।

তিনি জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় আবদুর রহিমের পরিবারের পক্ষ থেকে সুন্দরগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে। এছাড়া ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আটক করতে পুলিশ তৎপর রয়েছে বলেও জানান ওসি।

মতামত.........