13695091_253447915039153_1041837882_nনুর উদ্দিন মুরাদ, কোম্পানীগন্জ প্রতিনিধিঃ

নোয়াখালীর কোম্পানীগন্জ উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নে একটি চা দোকানে গ্যাস সিলিন্ডার বিষ্পোরিত হয়ে তিন শিশু সহ ৫ জন দগ্ধ হয়েছে।পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ফাহিম (৭) শাফায়াত হোসেন (১১) নামের দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ফাহিম ও ঢাকায় নেয়ার পথে শাফায়াত হোসেনের মৃত্যু হয়।

নিহত ফাহিম মুছাপুর ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের তরিকুল ইসলামের ছেলে ও শাফায়াত হোসেন একই এলাকার নুর নবীর ছেলে। দগ্ধরা হলেন- একই এলাকার মোঃ সেলিমের ছেলে জিশোর (১৩), আবুল কালামের ছেলে ও দোকানের মালিক মামুন সহ (২০) ৩ জন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য (মেম্বার) হেদায়েত উল্যাহ মানিক জানান, বিকেল ৪ টার দিকে ইউনিয়নের বাগদা বাজারে মামুনের চা দোকানে গ্যাসের চুলা জ্বালাতে গেলে আগুনের সুত্রপাত হয়। এ সময় ওই দোকানে পন্য কিনতে আসা ফাহিম, শাফায়াত, জিশোর ও দোকানের মালিক মামুনসহ ৫ জন অগ্নিদগ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয়রা আহতদের দ্রুত উদ্ধার করে প্রথমে কোম্পানীগন্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে অবস্থার অবনতি ঘটলে কয়েকজনকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল ও ঢাকায় প্রেরন করে।

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাঃ ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী জানান, অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় শিশু ফাহিমকে হাসপাতালে ভর্তির পর সন্ধ্যা সাডে ৭ টার দিকে তার মৃত্যু হয়।আগুনে ফাহিমের শরীরের প্রায় ৮০ শতাংশ পুডে গেছে।অপর দিকে শাফায়াত কে ঢাকায় নেয়ার পথে সাডে ৯ টায় তার মৃত্যু হয়। তারও শরীরের প্রায় ৮০ শতাংশ পুডে যায়।

কোম্পানীগন্জ থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) সৈয়দ মোঃ ফজলে রাব্বি মিয়া জানান,খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাটানো হয়েছে।প্রাথমিক ভাবে জানা গেছে গ্যাসের অটো চুলায় আগে থেকেই লিক থাকায় গ্যাস বাতাশে ছডিয়ে ছিলো। পরে দোকানের মালিক মামুন চুলায় আগুন দিতে গেলে আগুন পুরো দোকানে ছডিয়ে পডে ৫ জন দগ্ধ হয়।

কোম্পানীগঞ্জে গ্যাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে এক শিশু সহ নিহত ২, দগ্ধ ৫,

মতামত.........