,

কিশোরীর প্রাণ কেড়ে নিল পহেলা বৈশাখের শাড়ি

কামরুল হাসান, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ

ঠাকুরগাঁও পীরগঞ্জে বুধবার ১১ই এপ্রিল ১৩ বছর বয়সের এক কিশোরী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পীরগঞ্জ পৌরসভার গুয়াগাঁও এলাকার ৭নং ওয়ার্ডের মোঃ মন্টু আলীর মেয়ে পহেলা বৈশাখ পালন করার জন্য বাবা মায়ের কাছে বৈশাখের নতুন শাড়ি কেনার জন্য বায়না ধরে।

তার বাবা একজন দিনমুজুর হওয়ার ফলে শাড়ি কিনে দিতে না পারায় বাবা মায়ের উপর মান অভিমান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে তার বাসার ঘরের বাঁশের সড়ের সহিত পরনের উড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দেয়। তার মা নাসিমা বেগম বাড়িতে এলে দরজা খুলে দেখে মেয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় ছটপট করছে। এমতাবস্থায় মা চিৎকার দিলে এলাকাবাসী এসে কিশোরীটিকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখলে দ্রুত তাকে পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়, পথিমধ্যে কিশোরীটি মৃত্যুবরণ করে বলে জানান তার ফুফাতো ভাই আনোয়ার হোসেন।

কিশোরীটি বিজিবি স্কুলের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী ছিল। এই বিষয়ে পীরগঞ্জ থানা অফিসার ইনর্চাজ আমিরুজ্জামানের কাছে মুঠোফনে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান থানায় একটি ইউডি মামলা রজু হয়েছে।

মতামত.........