,

ইউটিউবে সাড়া ফেলে দিয়েছে শিল্পী পলি শারমিনের দেশের গান সোনার এ বাংলাদেশ

বিনোদন ডেস্ক, সংবাদ সবসময়:

ইউটিউবে দর্শকদের মাঝে সাড়া ফেলে দিয়েছে সঙ্গিত শিল্পী পলি শারমিনের জনপ্রিয় দেশের গান “সোনার এই বাংলাদেশ” জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে গত ১৫ আগস্ট মিউজিক ভিডিওটি প্রকাশ হয়। ইউটিউবে গানটি রিলিজ হওয়ার পর তরুণ প্রজন্মের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলে দিয়েছে। মাই সাউন্ড এর ব্যানারে প্রায় ৬ মিনিটের মিউজিক ভিডিওটি নির্মিত হয়েছে সোহরায়ার্দী উদ্যানে। গানটির গীতিকার এআর রহমান। সুরারোপ করেছেন ক্ষ্যাতিমান সুরকার রেমো বিপ্লব। ভিডিওতে লাল-সবুজের বেশে গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন তরুণ উদীয়মান সঙ্গীত শিল্পী পলি শারমিন। মুল গানটি হলো “বুকের তাজা রক্ত দিয়ে, শত্রু করেছি শেষ, স্বাধীন করেছি মুক্তিযুদ্ধে সোনার এই বাংলাদেশ। যে দিকে চাই পাখির গান, ভরে যায়, আমার মন ও প্রাণ। নদী মাতৃক এ দেশ, বাংলাদেশ আমার বাংলাদেশ। চির সবুজ এই বাংলাদেশ, বাংলাদেশ আমার বাংলাদেশ। মাতৃভূমি এই বাংলাদেশ। কতনা কষ্টে করেছি মোরা, কতনা দিয়েছি প্রাণ, এখনও শুনি প্রতিধ্বনী, ভাই হারা একুশের গান। কতনা কাব্য লিখেছি মোরা, কতনা গেয়েছি গান। সালাম-বরকত জীবন দিয়ে, রেখে গেছে এদেশের মান”।

পুরা গানটি জুড়েই রয়েছে ৫২’র ভাষা আন্দোলন, ৭১’ এর মহান মুক্তিযুদ্ধ ও শত্রুমুক্ত স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের সবুজ শ্যামল প্রকৃতির রূপ। ভিডিওতে মাঝে মাঝে দেখানো হয়েছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষন, সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধ, শরনার্থিদের করুণ চিত্র, ভাষা সৈনিক শহীদ সালাম ও বরকতের আত্মত্যাগ, শহীদ মিনার ও নদী মাতৃক বাংলাদেশের সবুজ শ্যামল প্রকৃতি, ফসলের মাঠ ও শিশু কিশোরদের উল্লাসের খন্ড খন্ড প্রামাণ্য চিত্র। লাল-সবুজের বেশে শিল্পী পলি শারমিনের সুরেলা কণ্ঠের গান ও সাথে চমৎকার প্রামাণ্য চিত্র যোগ হওয়ার ফলে মিউজিক ভিডিওটি অসাধারণ হয়েছে। জনপ্রিয় এ দেশের গানটি দেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ করতে ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছেন তরুণ প্রজন্মের বিনোদন প্রিয় দর্শকরা। আশরাফুল ইসলাম বলেন, গানটিতে দেশ প্রেমের বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে।

কামাল বড়ুয়া বলেন, গানটি তরুণ প্রজন্মকে নতুন করে দেশ প্রেমে জাগিয়ে তুলতে ভূমিকা রাখবে। শিল্পী পলি শারমিন বলেন, গানটি প্রকাশ হওয়ার পর তরুণ প্রজন্মের কাছ থেকে ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। গানটি খুব শিঘ্রই বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে প্রচারিত হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমার আরো ৩টি গান প্রকাশের অপেক্ষায় রয়েছে। গান গুলো হলো নয়নে নয়নে, আমার এ পরাণ ও সিম্পল সুন্দরী। সোনার এই বাংলাদেশ গানের জন্য তিনি মাই সাউন্ড এর  জামিল উদ্দীন ও জিবক বড়ুয়ার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে সকলের কাছে দোয়া ও আশির্বাদ কামনা করেছেন।

উল্লেখ্য, জনপ্রিয় এ শিল্পী ১৯৮১ সালের ১০ ডিসেম্বর চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার পশ্চিম চাম্বল গ্রামের সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি দ্বিতীয় পড়াকালীন সময় থেকে টানা ১০ বছর ওস্তাদ নিরদ বরণ বড়ুয়া, মনোরঞ্জন শীল ও বানি কুমার চৌধুরীর নিকট উচ্চাঙ্গ সঙ্গীতের তালিম দেন। ৬ষ্ঠ শ্রেণি থেকেই বিভিন্ন মঞ্চ অনুষ্ঠান, বেতার ও টেলিভিশনে সঙ্গীত পরিবেশন করে আসছে। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রের ‘ক’ শাখায় আধুনিক গানের শিল্পী হিসাবে যুক্ত রয়েছে। তিনি বাহরাইন সহ বিদেশের অনেক অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেছেন। এ পর্যন্ত তার ৪টি এ্যালবাম বাজারে এসেছে। যার মধ্যে তুমি শুধু একজন, ও প্রিয়, এ কোন কষ্ট ও স্বপ্নচারী। তরুণ উদীয়মান এ শিল্পী দেশ বিটিভি ও টেলিভিশনের লাইভ অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করে থাকেন। বর্তমানে তিনি পরিবারের সাথেই ঢাকায় বসবাস করছেন।

গানটির ভিডিও দেখুন এখানে…

মতামত.........