,

আবুবকর সিদ্দিক এর কবিতা, “ঘুমন্ত নগরী”

13406934_255518364814272_2886325144473715031_n“ঘুমন্ত নগরী”
এই ঘুমন্ত নগরীর মানুষ গুলি ঘুমিয়ে পড়ছে আপন মনে।
আমি টপ লাইটের আলোতে চায়ের পেয়ালায় চুমা
দিতেই তোমার প্রতিছব্বি ভেসে আসে চোখের আবিরে।
 
হয়তো তুমি ও ঘুমিয়ে পড়েছ নন্দিনী ও নীলাঞ্চনা
ক্লান্ত দেহখানী নরম বিছানায় এলিয়ে নিদ্রাদেবীর কোলে।
আর আমি রাত জাগা পাখিরর মত দুঃখের দহন বুকে নিয়ে জেগে আছি, এই ঘুমন্ত নগরীরে আসেনা আমার ঘুম।
 
নিদ্রাদেবী বুঝি কেঁড়ে নিল আমার দুচোখের সব ঘুম
কেন এমন হল বুঝিনা মনে হয় এই বুঝি হৃদয় রক্ত করন
শুরু হলো, শুধু বুকের ভেতর প্রচণ্ড এক প্রলয়।
তোমাকে খুব মনে পড়ে কি এমন মায়া জ্বালে আঁটকে রেখে।
 
তুমি কেন চলে গেলে হৃদয় শুন্য করে আদৌ জানিনা।
হয়তো সুখে আছো নয়তো বা দুঃখের, সুখের মাঝেই
কাঁটুক তোমার প্রতিটিক্ষণ।
 
আর আমি তো ঘুমন্ত নগরীর এক ঘুমন্ত পথে পথিক
তাইতো ঘুমন্ত নগরীর টপ লাইটের আলোতে রাত জাগা
তুমি আজ যেনে রাখ আমি আসবো কোনো একদিন
তোমার কাছে সাদা কাপনে ঢাকা নিথর হয়ে তোমারি কিনারায়।
সে দিন থেকে আমার ঘুমন্ত নগরীতে রাত জাগা শেষ হবে
টপ লাইটের আলোতে নন্দিনী ওরে নীলাঞ্চনা।।।

মতামত.........